গ্রামবাসীর দুর্ভোগ নিরসন করলো লক্ষ্মীপুরের তরুণরা

প্রায় ৮ মাস আগে লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার মটবী গ্রামের জনগুরুত্বপূর্ণ একটি কালভার্টে ধস নামে। এই ভাঙা কালভার্টের উপর দিয়ে চলাচল করতে গিয়ে ইতোমধ্যে ৯ জন মানুষ দুর্ঘটনায় আহত হন। তাছাড়া স্থানীয়দের জরুরি প্রয়োজনে ছোট ছোট যানবাহন চলাচলেও অসুবিধা সৃষ্টি হয়।

তবে দীর্ঘদিন ধরে গ্রামবাসীর এমন দুর্ভোগ দেখেও প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়ে এগিয়ে আসেননি সংশ্লিষ্টদের কেউই।

অবশেষে গ্রামবাসীর পাশে দাঁড়ালেন তরুণ সংগঠক সিএম ওয়াছি উদ্দিন জিতু। তিনি ব্যক্তিগত উদ্যোগে স্থানীয় তরুণদের সহযোগিতায় গ্রামের ভাঙা কালভার্টটি সংস্কার করেন। ফলে দীর্ঘদিনের একটি দুর্ভোগ থেকে রেহাই পেল গ্রামবাসী। এজন্য তরুণ সংগঠক ওয়াছি জিতুসহ গ্রামের তরুণদের ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

এদিকে মান্দারী ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য রুহুল আমিন মুন্সি জানান, মটবী গ্রামের জনগুরুত্ব এই কালভার্টটি ভেঙে নতুন কালভার্ট নির্মাণের জন্য টেন্ডার হয়েছে। কিন্তু বৈশ্বিক অর্থনীতি মন্দা ও করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে কাজটি এখনই বাস্তবায়ন করা যাচ্ছে না।

তরুণ সংগঠক সিএম ওয়াছি উদ্দিন জিতু নোয়াখালী টিভিকে বলেন, চলমান দুর্যোগের প্রভাব প্রতিটি মানুষের জীবনযাত্রাকে বিভিন্নভাবে প্রভাবিত করছে। এ সংকট থেকে আমাদেরকে শিক্ষা নিতে হবে। পরনির্ভরশীল না হয়ে থেকে নিজেরাই কিছু করে দেখাতে হবে, সাধ্যমত প্রচেষ্টার মাধ্যমে। আর আমাদের ভালো কাজের শুরুটা হোক নিজের ঘর ও গ্রাম থেকেই। এভাবেই দেশ, জাতি ও মানুষের কল্যাণে এগিয়ে যেতে চাই।

পাঠকের মন্তব্য