ধর্ষণের ঘটনা নিয়ে কোনো ধরনের রাজনীতি করা উচিৎ নয়: ওবায়দুল কাদের


ধর্ষণের বিরুদ্ধে সামাজিক প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। এ নিয়ে কোনো ধরনের রাজনীতি করা উচিৎ নয় বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। দুপুরে সচিবালয়ে ব্রিফিংয়ে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, ধর্ষণের ঘটনায় সরকার ও দল দায় এড়াতে পারে না। দলীয় পরিচয় যাই হোক না কেনো ব্যবস্থা নেয়া হবে। কেউ ছাড় পাবে না। অপরাধী ও প্রশ্রয়দাতাদের ধরিয়ে দিতে সবাইকে সহায়তা করার আহ্বানও জানান তিনি।

এসময় ট্রাক ও কাভার্ড ভ্যান মালিক সমিতিকে পরিবহণ ধর্মঘট প্রত্যাহারের অনুরোধ করেন সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী। যৌক্তিক দাবি থাকলে ব্যবস্থা নেয়া হবে। আলোচনায় বসতে হবে বলে তিনি জানান।

মন্ত্রী আরও বলেন, করোনার মধ্যে আমি কাজ করেছি। যেখানে যাওয়ার প্রয়োজন ছিলো না, সেখানে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে যাইনি শুধু। মন্ত্রণালয়ের কাজে সব সময় যুক্ত থেকেছি। আমার কারণে কোন ফাইল আটকে থাকে নি। আমি আজকের কাজ কালকের জন্য ফেলে রাখি না।

ওবায়দুল কাদের বলেন, সড়কের কাজের গুনগত মান এখন আমাদের সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার। এর দায় দায়িত্বশীলরা এড়াতে পারবেন না। সড়কের কাজ সময়মতো শেষ না করে ব্যয় বাড়ানো হয়। প্রকৌশলী-ঠিকাদাররা এক্ষেত্রে যোগসাজস করেন। এটা করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য